জেনে নিন লিপস্টিক ব্যবহার করার সঠিক উপায়

lipstik use shijang

 

সাজতে কার না ভালোলাগে? খুব কম সংখ্যক মহিলা আছে যারা বলবেন যে সাজতে ভালোলাগে না। যুগের সাথে তাল মিলিয়ে যেমন নানা পোশাক এসেছে, তেমন এসেছে প্রসাধনী সামগ্রী। তার মধ্যে অন্যতম হলো লিপস্টিক। নিজের মেকআপের সাথে মিলিয়ে, পরিচ্ছদের সাথে সামঞ্জস্য রেখে এই লিপস্টিক পড়া খুব সহজ দেখতে লাগলেও মহিলা মহলের কাছে মতে তা নয়। এর মধ্যে অনেকেই চান রঙের তারতম্যে ঠোঁট পাক আলাদা মাত্রা।

সবার থেকে আলাদা করে চিনিয়ে দিক আপনাকে। আপনি যদি গতানুগতিক হালকা কালারের লিপস্টিক পড়তে পড়তে ক্লান্ত, একঘয়ে হয়ে যান তবে আজকের আলোচনা আপনারই জন্য , কিভাবে লিপস্টিক পড়লে আপনার ঠোঁটটি হয়ে উঠবে আরো মোহময়ী এবং আকর্ষণীয় সেই সম্পর্কেই আজ আপনাদের সাথে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে। তবে আসুন জেনে নেই বোল্ড লিপস্টিক পড়ার সঠিক নিয়ম।

1- প্রথমে মুখ পরিষ্কার করুন

পুরো মুখ আপনার পছন্দ মতো ফেসওয়াশ দিয়ে ভালো ভাবে পরিষ্কার করে নিন, এখন শুধু মুখ পরিষ্কার করলেই তো হবে না। আমাদের ঠোঁটে যে মৃতকোষ গুলো আছে সেগুলোকে ভালোভাবে পরিষ্কার না করলে লিপস্টিক কখনোই সমানভাবে ঠোঁটে বসবে না, তার জন্য আমরা আপনাদের জন্যে দিচ্ছি এক ছোট্ট, সহজ অথচ সাধারণ উপায়। একটা ছোট বাটিতে এক চা চামচ মতো চিনি নিন। আর এর সাথে এক টুকরো পাতিলেবুর রস ভালোভাবে মিশিয়ে দু মিনিট মতো ঠোঁটে ঘষলেই আপনার ঠোঁটের যাবতীয় ডেড সেল (মৃত কোষ) পরিষ্কার হয়ে ঠোঁট নরম এবং মোলায়েম হবে।

2-কালো ঠোঁট কিভাবে সামলাবেন

আমাদের মধ্যে অনেকেরই সমস্যা থাকে কালো ঠোঁট নিয়ে,এখন এমন কালো ঠোঁট হলে লিপস্টিক এর সঠিক কালার ঠোঁটে বসতে চায় না। সেক্ষেত্রেও একটা সহজ উপায় আছে। পুরো ঠোঁট যখন পরিষ্কার করা হয়ে যাবে তখন যেকোনো লিপবাম লাগিয়ে কিছুক্ষন অপেক্ষা করুন। এরপর পুরো ঠোঁটে আপনার পছন্দ মতন কন্সিলার বা আপনি যে মেকআপ আপনার মুখের জন্য ব্যবহার করেন সেটা আপনার পুরো ঠোঁটে লাগিয়ে নিন।

3- সীমারেখার দরকার আছে

এরপর আপনি যেকোনো ডার্ক কালারের লিপলাইনার নিন তা সে ডিপ মেরুন বা ডিপ লাল। যে কালার টা আপনার স্কিন টোনের সাথে ম্যাচ করে সেটি বুঝে বেছে নিন আপনার পছন্দের লিপলাইনার। এবার আপনার ঠোঁটের বর্ডার লাইন বরাবর এঁকে ফেলুন। যদি ঠোঁটটি মোটা করে আঁকতে চান তবে বর্ডার লাইন একটু বাইরের দিকে এগিয়ে আঁকুন। আর যদি আপনার ঠোঁট প্রয়োজনের তুলনায় বেশি মোটা হয় তবে লিপলাইনার দিয়ে বর্ডার লাইন একটু ভিতরের দিকে চেপে আঁকুন। এতে আপনার ঠোঁট পাতলা দেখাবে। আপনার পছন্দ মতো ঠোঁট আঁকা হয়ে গেলে ওই লিপলাইনার দিয়েই পুরো ঠোঁট হালকা করে বুলিয়ে নিন।

4- আপনার লিপস্টিক বেছে নিন

সবার শেষে আপনার পছন্দ মতন লিপস্টিক (সেটা ডিপ মেরুন বা ডিপ লাল যাই হোক না কেন) নিয়ে প্রথমে উপরের ঠোঁট এবং পরে নিচের ঠোঁটে সঠিক পরিমানে লাগিয়ে নিন। অনেকেই চায় ঠোঁটে একটু ম্যাট ফিনিশ আসুক। পুরো লিপস্টিক পড়ার পর যদি আপনিও একটু বেশি ম্যাট ফিনিশ চান তবে একটা টিসু নিয়ে দুটো ঠোঁটের মাঝে হালকা করে চেপে নিলেই পেয়ে যাবেন আপনার বোল্ড গর্জিয়াস ম্যাট কালার লিপস্টিক।

আর আপনি যদি পছন্দ করেন glossy ফিনিশিং, তাহলে পুরো লিপস্টিক পড়ার পরে ঠোঁটে কোনো গ্লস লাগিয়ে নিন তবেই পেয়ে যাবেন আপনার পছন্দ মতন বোল্ড গ্লসি কালার লিপ্স।

সবশেষে ঠোঁটের চারিপাশে হালকা করে কন্সিলার লাগিয়ে নিতে ভুলবেননা এটি আপনার ঠোঁটের কালারকে আরো উজ্জ্বল করে তুলবে।

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of